বিপরীতমুখী

বিপরীতমুখী

সারাটা জীবন জেদ করে তুই আমার বিপরীতেই থেকে গেলি মেয়ে …

আমি বললাম দেখ,
চাদের কি অপরূপ স্নিগ্ধ আলো…
তুই সেই উল্টো মুখী বরাবরের মত !

ঠোঁটের ধনুকে টান টান বিদ্রুপের
তীর এঁকে বললি … কই ? এতো ঘোর নিকষ কালো !

এভাবেই আমার আলোটুকু তার আড়ালেই থেকে গেল !

ওয়াহিদা নীরা

No comments

Write a comment
No Comments Yet! You can be first to comment this post!

Write a Comment

Your e-mail address will not be published.
Required fields are marked*


Related Articles

আমার গাঁয়ে প্রভাত কালে

আমার গাঁয়ে প্রভাত কালে লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী   আমার গাঁয়ে প্রভাত কালে, রোজ প্রভাত পাখিরা গাহে। পূব গগনে ওঠে সোনার রবি,

আমার একটা বাসা ছিল

আমার একটা বাসা ছিল তার চিলেকোঠায় স্বপ্ন ছিল। অনেক রকম স্বপ্ন, রঙিন প্রজাপতির মতন, সুদর্শন যুবার মতন, ইচ্ছে পূরণের চেরাগের

কবিতাঃ ভালবাসে কয়জন?

কঠোর রৌদ্র পোড়া কোন এক দপুরে আমি ক্লান্ত, ক্লান্ত হয়ে হাটছি এক আফুরন্ত মাঠের শুকিয়ে যাওয়া ঘাসের ওপর দিয়ে গন্তব্য